ঢাকা বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সার্টিফিকেট জালিয়াতি মামলায় গ্রেফতার দুই «» ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের পর এবার ডাকবাংলায় ২৫ টাকার ঔষুধ ৬শ টাকায় বিক্রি, জরিমানা আদায় «» ঝিনাইদহের বৈডাঙ্গায় গুজবে কান না দেওয়ার জন্য ঝিনাইদহ থানা পুলিশের উদ্যোগে গণ-সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত «» ঝিনাইদহে পুকুর ডোবায় নেই পানি, পানির অভাবে পাট জাগ দিতে মহাবিপাকে পাটচাষীরা «» ঝিনাইদহে বর্ণাঢ্য আয়োজনে কসাসের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত «» ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামানের নির্দেশে ও শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ বজলুর রহমানের নেতৃত্বে গুজব বন্ধে শৈলকুপায় পুলিশের প্রচারাভিযান শুরু «» দিনাজপুরে পাবলিক সার্ভি দিবসে বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত «» মাছের চাষে ভরপুর জেলা মোদের দিনাজপুর «» ফুলবাড়ীতে পাবলিক সার্ভিস দিবস পালনে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» ফুলবাড়ীতে টিউশনির অর্থে শিক্ষার্থীকে পাঠ্যবই প্রদান

দৌলতপুরের লক্ষিকোলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে গোপনে ২ লাখ টাকার শিশু গাছ ২৬ হাজার টাকায় বিক্রয়ের অভিযোগ

কুষ্টিয়া অফিস ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ১৭৪ নং লক্ষিকোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রহিতুল ইসলামের বিরুদ্ধে ২ লাখ টাকার ০২টি শিশু গাছ ২৬,৯১১/= টাকায় গোপনে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। এতে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যসহ শিক্ষার্থী, অভিভাবকেরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। এলাকার অভিভাবক বৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ১৯৯১ সালে এই বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করার সময় পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে এলাকার মানুষ এই বিদ্যালয়ের আঙ্গিনায় বিভিন্ন স্থানে গাছ রোপণ করেন, গাছ খেকো হেড মাষ্টার নানা অছিলায় গাছ গুলি কেটে নিয়েছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে স্কুল ফাঁকী, শিক্ষার্থীদের দিয়ে ব্যাক্তিগত কাজ করিয়ে নেওয়ার অভিযোগ আছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, দূর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষক বিভিন্ন মহলকে হাত করে, গত ১৫/০৫/২০১৯ইং তারিখে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার নিকট বিদ্যালয়ের পার্শে অবস্থিত দু’টি মরা শিশু গাছ নিলামে বিক্রয় করার জন্য আবেদন করেন, যা বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের অনুমতিক্রমে মিটিং ডেকে রেজুলেশন করে অত্র বিদ্যালয়ের সুচতুর প্রধান শিক্ষক। গত ২৬/৫/২০১৯ তাং বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কর্তৃক নির্ধারিত ২৩,৫০৬/= (তেইশ হাজার পাঁচ শত ছয় টাকা) মূল্যে ও তার সাথে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে আয়কর সহ বিক্রয় করা হবে মর্মে নোটিশ প্রদান করলে নিজেদের মন গড়া সাজানো আগ্রহী ব্যাক্তিগণের মধ্যে সর্বোচ্চ দর পত্র দাতা মোঃ শাহাজুল ইসলাম পিতা মৃত আকবর মোল্লা, সাং শীতলাইপাড়া, উপজেলা দৌলতপুর, জেলা কুষ্টিয়া আয়কর ভ্যাট সহ ২৬,৯১১/= (ছাব্বিশ হাজার নয়শত এগারো টাকা) দর প্রদান করায় তাকে দুটি শিশু গাছ কর্তন করে আহরন প্রদানের জন্য শুপারিশ করা হয়। যা অত্র বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যগণ কিছুই জানেনা। গত ১৪ জুন সকাল সাড়ে ৭ টার সময় সর্বোচ্চ দর দাতা ক্রেতা সাহাজুল ইসলাম তার ক্রয়কৃত গাছ কর্তন করতে গেলে এলাকাবাসী ও বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যগণ মিলে গাছ কর্তনে বাঁধা প্রদান করেন। তারা স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, প্রধান শিক্ষক তার স্বার্থ হাসিলের জন্য প্রকাশ্যে দরপত্র আহব্বান না করে গোপনে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগসাজোসে গোপনে মোটা অংকের লেনদেন করে, দু’লক্ষ টাকার শিশুগাছ নামমাত্র মূল্যে মাত্র ২৬,৯১১/= (ছাব্বিশ হাজার নয় শত এগার) টাকায় বিক্রিতে স্বাক্ষর করেন। এ বিষয়ে অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রহিতুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন গাছ বিক্রয়ের বিষয়ে তার কোন কিছু জানা নাই, এই বিষয়টা সম্পুর্ন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আর বন বিভাগের কর্মকর্তারা জানেন। তিনি আরো বলেন, গাছ বিক্রয়ের সময় আমাকে জানানো হয় নাই। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট এলাকাবাসী ও বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যগণের দাবী ১৭৪ নং লক্ষিকোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু গাছ দু’টির দরপত্র বাতিল করে পুনরায় দরপত্র আহবান করে ন্যায্য মূল্যে বিক্রি করার জোর দাবী জানান। এ ছাড়া দূর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষকের শাস্তি দাবী করেন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, সরকারী বিধিসম্মত ভাবে দর পত্র আহবান করে গাছ দু’টি বিক্রয় করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ