ঢাকা রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» জীবননগরে সীমান্তবর্তী এলাকায় ভুয়া পানি বাবার আবির্ভাব, ভক্তদের ভিড় এক ফুঁতে সব রোগ ভালো «» রাজশাহীতে আমন রোপণ ব্যাহত,কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টির দেখা নেই «» রাজশাহীতে ছেলেধরা গুজবে মাইকিংয়ের নির্দেশনা,নারীসহ দুই যুবককে গণপিটুনি «» চুয়াডাঙ্গা পরিদর্শনে পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি হাবিবুর রহমান  «» গ্রামের মানুষের জন্যে নিজ টাকায় রাস্তা সংস্কার করলের যুবলীগ নেতা মিজান «» কোম্পানীগঞ্জে জেল থেকে বের হওয়ার ১৫ দিনের মাথায় প্রতিপক্ষের পিটুনিতে যুবক নিহত «» ফরিদপুরে জাল টাকাসহ আটক-২ «» দিনাজপুরে নবরূপী’র মাসিক সাহিত্য বাসরে কবি সাহিত্যিকদের মিলন মেলা «» দিনাজপুর দোকান কর্মচারী ইউনিয়নের বিশেষ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত «» দিনাজপুরে শীঘ্রই পাইপ লাইনে গ্যাস আসছে

নিউজিল্যান্ড ১০ উইকেটে হারাল শ্রীলংকাকে

পাকিস্তানের পর শ্রীলংকা। বিশ্বকাপে নিজেদের তুলে ধরতে পারছেনা দল দুটি। দুটি দলই নিজেদের প্রথম ম্যাচে ব্যাটিং লজ্জায় ডুবিয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১০৫ রানে অলআউট হয়েছিল পাকিস্তান। এবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৩৬ রানে অলআউট হলো শ্রীলংকা। আর শ্রীলংকাকে ১০ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপের সেরা শুরু করেছে নিউজিল্যান্ড। শ্রীলংকার বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে এতো সহজে, এতো বড় জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করার চিন্তাও করেনি নিউজিল্যান্ড। অথচ বিশ্বকাপের মঞ্চে শ্রীলংকাকে পাত্তা না দিয়ে হেসে খেলেই হারাল দলটি। আগে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৩৬ রানেই অলআউট হয় শ্রীলংকা। ফলে জয়ের জন্য ১৩৭ রানের সহজ টার্গেট পায় নিউজিল্যান্ড। সহজ টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে কোন উইকেট না হারিয়ে মাত্র ১৬.১ ওভারে ১৩৭ রান করে ১০ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড।
জয়ের জন্য মাত্র ১৩৭ রানের টার্গেট পাওয়ায় নিউজিল্যান্ডের জয়টা হাতে মুঠোই ছিল। তবে দলটি চেয়েছিল সর্বোচ্চ উইকেট ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে। শেষ পর্যন্ত সেটাই করেছে দলটি। দুই নির্ভরযোগ্য ওপেনার মার্টিন গাপটিল আর কলিন মুনরোকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে কোন উইকেট না হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌছে গেছে দলটি। দুই ওপেনার মিলেই টার্গেট ১৩৭ রান করেন। গাপটিল ৭৩ রান আর মুনরো ৫৮ রানে অপারাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন। ৫১ বলে ৮টি চার আর ২টি চক্কায় সাজানো ছিল গাপটিলের ইনিংসটি। মুনরোর ৫৮ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৪৭ বলে ৬টি চার আর এক ছক্কায়। শ্রীলংকার বোলাররা বারবার চেস্টা করেও কোন উইকেট নিতে পারেনি। ফলে গাপটিল আর মুনরো টার্গেট ১৩৭ রান করে অপরাজিত থেকে জয় উপহার দিয়েই মাঠ ছেড়েছে। এরআগে, টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেই ব্যাটিং বিপাকে পড়ে শ্রীলংকা। ম্যাট হেনরি ও লোকি ফার্গুসনের বোলিং তা-বে মাত্র ১৩৬ রানেই শেষ শ্রীলংকার ইনিংস। দলটির ইনিংস স্থায়ী হয় মাত্র ২৯.২ ওভার। দলটির পক্ষে মাত্র তিন ব্যাটসম্যানর ডাবল ফিগারে রান করতে পেরেছে। ব্যাট করতে নেমে দলীয় মাত্র ৪ রানেই শ্রীলংকার হারায় প্রথম উইকেট। হেনরির বলে এলবিডব্লু হয়ে ৪ রানে ফিরে যান লাহিরু থিরিমান্নে। এর পর হেনরির বলে বোল্ড হয়ে মাঠ ছাড়েন ২৯ রান করা কুশল পেরেরা। ব্যাট করতে নেমে কূশল মেন্ডিস আর অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ শুন্য রানে আউট হলেও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ৪ রানে আর জীবন মেন্ডিস ১ রান করে আউট হন। তবে টিকে থাকার চেষ্টা করে ফেরেন থিসারা পেরেরাও। ২৭ রানে তাকে ফেরান মিচেল স্যান্টনার। দলীয় ১১৪ রানে ব্যক্তিগত শূন্য রানে ফেরেন ইসুরু উদানাও। তাকে ফেরান জেমস নিশাম। ৭ রানে সুরঙ্গা লাকমলকে ফিরিয়ে দেন ট্রেন্ট বোল্ট। সবশেষ লাসিথ মালিঙ্গা ফিরে গেলে শ্রীলংকার স্কোর থামে ১৩৬ রানে। ২৩ বলে ২৭ রান করে থিসারা পেরেরা ফিরে গেলে এক প্রান্ত আগলে রেখে ফিফটি তুলে নেয়া অধিনায়ক করুণারতেœ শেষ পর্যন্ত লড়াই করে গেছেন। ৮৪ বলে ৫২ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। এটাই দলের সর্বোচ্চ স্কোর। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে হেনরি ও ফার্গুসন নেন তিনটি করে উইকেট। একটি করে নেন গ্রান্ডহোম, বোল্ট, নিশাম ও স্যান্টনার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর-
শ্রীলংকা- ১৩৬/১০ (২৯.২ ওভার)
নিউজিল্যান্ড- ১৩৭/০ (১৬. ওভার)
নিউজিল্যান্ড ১০ উইকেটে জয়ী।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ