ঢাকা রবিবার, ১৬ই জুন, ২০১৯ ইং, ২রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :

চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে কয়েক দফায় ‘ধর্ষণ

বেসরকারি এক হাসপাতালে সেবিকার চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নরসিংদীতে। অভিযুক্ত চিকিৎসক আশরাফ উদ্দিন জুলফিকারকে (৫০) কে আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, অভিযুক্ত চিকিৎসক আশরাফ গাজীপুর জেলার হোতাপাড়ার মনিপুরের সিরাজুল ইসলামের ছেলে ও নরসিংদীর শীলমান্দি এলাকার সোনিয়া নিটওয়্যার কারখানার আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা।

নরসিংদী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সৈয়দুজ্জামান জানান, অভিযুক্ত আশরাফ ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে প্রাইভেট প্র্যাকটিস করেন। সেখানে এক কিশোরীর সাথে তার পরিচয় হয়।

তিনি ওই কিশোরীকে বেসরকারি হাসপাতালে সেবিকার চাকরি দেয়ার জন্য নার্সিং কোর্স করাতে গত ৩১ এপ্রিল শীলমান্দি এলাকার ভাড়া বাসায় নিয়ে আসেন এবং ৪ মে রাতে তাকে ধর্ষণ করেন। পরে আরও কয়েকবার ধর্ষিত হয় ওই কিশোরী।

শুক্রবার স্থানীয়রা ঘটনাটি টের পেয়ে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ওই কিশোরীকে উদ্ধার ও অভিযুক্ত চিকিৎসককে আটক করেন।

নির্যাতিতা কিশোরীর মা বাদী হয়ে নরসিংদী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ