ঢাকা বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সার্টিফিকেট জালিয়াতি মামলায় গ্রেফতার দুই «» ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের পর এবার ডাকবাংলায় ২৫ টাকার ঔষুধ ৬শ টাকায় বিক্রি, জরিমানা আদায় «» ঝিনাইদহের বৈডাঙ্গায় গুজবে কান না দেওয়ার জন্য ঝিনাইদহ থানা পুলিশের উদ্যোগে গণ-সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত «» ঝিনাইদহে পুকুর ডোবায় নেই পানি, পানির অভাবে পাট জাগ দিতে মহাবিপাকে পাটচাষীরা «» ঝিনাইদহে বর্ণাঢ্য আয়োজনে কসাসের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত «» ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামানের নির্দেশে ও শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ বজলুর রহমানের নেতৃত্বে গুজব বন্ধে শৈলকুপায় পুলিশের প্রচারাভিযান শুরু «» দিনাজপুরে পাবলিক সার্ভি দিবসে বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত «» মাছের চাষে ভরপুর জেলা মোদের দিনাজপুর «» ফুলবাড়ীতে পাবলিক সার্ভিস দিবস পালনে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» ফুলবাড়ীতে টিউশনির অর্থে শিক্ষার্থীকে পাঠ্যবই প্রদান

ট্রলার ডুবির ঘটনায় কক্সবাজার সৈকত থেকে আরও ৫ জেলের মৃতদেহ উদ্ধার

 ঝড়ের কবলে পড়ে মাছ ধরার ট্রলার ডুবির ঘটনায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে আরও পাঁচ জেলের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে গত তিন দিনে মৃতদেহ উদ্ধারের সংখ্যা ১১জনে দাঁড়িয়েছে।
কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. ইকবাল হোছাইন জানিয়েছেন, সাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে মাছ ধরার ট্রলার ডুবির ঘটনায় এসব জেলের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার রাতে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন জায়গা থেকে জেলেদের লাশ উদ্ধার করা হয়।
তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে হিমছড়ি থেকে একজন, মহেশখালীর হোয়ানক থেকে একজন এবং ওইদিন রাত ১০টা থেকে শুক্রবার ভোররাত পর্যন্ত কক্সবাজার সৈকতের সমিতি পাড়া থেকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
এর আগে বুধবার সকালে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সি-গাল পয়েন্ট থেকে মাছ ধরার একটি ট্রলার উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সাথে ছয় জেলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই ট্রলার থেকে আরো দুই জেলেকে জীবিত উদ্ধার হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ।
কক্সবাজার সদর থানার ওসি (তদন্ত) মো. খায়রুজ্জামান জানান, উদ্ধার হওয়া জেলেদের মধ্যে ছয় জনের পরিচয় মিলেছে। তারা হচ্ছেন- ভোলার চরফ্যাশনের পূর্ব মাদ্রাসা এলাকার তরিফ মাঝির ছেলে কামাল হোসেন (৩৫), চরফ্যাশনের উত্তর মাদ্রাসা এলাকার নুরু মাঝির ছেলে অলি উল্লাহ (৪০), একই এলাকার ফজু হাওলাদারের ছেলে অজি উল্লাহ (৩৫), মৃত আব্দুল হকের ছেলে মো. মাসুদ (৩৮), শহিদুল ইসলামের ছেলে বাবুল মিয়া (৩০) ও নজিব ইসলামের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩২)।
অপর পাঁচজনের পরিচয় এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শনাক্ত হওয়া ছয়জনের মৃতদেহ স্বজনের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।
পুলিশ জানিয়েছে, ট্রলারের মালিক ভোলার চরফ্যাশন এলাকার ওয়াজ উদ্দিন। এ ঘটনায় জীবিত উদ্ধার দুইজন এখনও কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
জীবিত উদ্ধার হওয়া মনির আহমদ মাঝি জানান, গত ৪ জুলাই ভোলার চরফ্যাশনের শামরাজ ঘাট থেকে তারা মাছ ধরার জন্য সাগরে পাড়ি দেয়। মোট ১৪ জন জেলে ওই ট্রলারে ছিলেন। ট্রলারটি গত ৬ জুলাই ভোরে হঠাৎ ঝড়ো হাওয়া ও উত্তাল ঢেউয়ের কবলে পড়ে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ