ঢাকা রবিবার, ১৬ই জুন, ২০১৯ ইং, ২রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :

নড়াইলে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণের পরে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগ \ লাশ উদ্ধার

শরিফুল ইসলাম স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল ঃনড়াইলের লোহাগড়ায় নবম শ্রেণির ছাত্রী নুপুর(১৫)কে অপহরণের পরে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার(২জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা দিকে পুলিশ লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ওই ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে। নুপুর নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের রায়গ্রামের হিরু বিশ^াসের মেয়ে এবংআর,কে,কে জনতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

নিহত ছাত্রীর কাকা বাচ্চু বিশ^াস ও আব্দুল করিম অভিযোগ করেন, গত ৬দিন আগে নুপুর নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুজি করে পাওয়া যায়নি। ২জুন সন্ধ্যার পরে খবর পেয়ে লোহাগড়া হাসপাতালে এসে নুপুরের লাশ পেয়েছি। তারা অভিযোগ করেন, ব্যা¤্রনডাংগা গ্রামের ওবায়দুর রহমান মানিকের ছেলে রবিউল ইসলাম রুবেল(২৫) ও নলদীর জালালসী গ্রামের চান সরদারের ছেলে আজাদ সরদার(৩৫) পরস্পর যোগসাজগে নুপুর কে তার বাবার বাড়ি থেকে অপহরণ করে লোহাগড়া বাজার সংলগ্ন পোদ্দারপাড়া গ্রামে মিনি নামে এক মহিলার বাসায় আটকে রেখে গণধর্ষণ করে এবং হত্যা করেছে। নিহতের চাচা বাচ্চু বিশ^াস নলদীর বারইপাড়া গ্রামের জহুরুল হকের মেয়ে মিনিকে এঘটনার সাথে সম্পৃক্ত বলে দাবি করেছেন। এ বিষয়ে মিনি বেগম বলেন, ৪/৫ দিন আগে নুপুর আমার বাড়ি ভাড়া নিয়েছিল। রবিবার সন্ধ্যায় নুপুর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসি।

লোহাগড়া হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাঃ দেবাশীষ বিশ^াস বলেন, হাসাপাতালে আনার অনেক আগেই রোগীর মৃত্যু হয়েছে। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মোকাররম হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করেছি। এ বিষয়ে এখন বিস্তারিত বলা যাচ্ছেনা। পোষ্টমর্টেম সহ যথাযথ আইনিব্যবস্থা নেবো। ঘটনার নেপথ্যকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ