ঢাকা বুধবার, ২৬শে জুন, ২০১৯ ইং, ১২ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» গাইবান্ধায় অনুর্দ্ধ-১২ ক্রিকেট কার্ণিভাল অনুষ্ঠিত «» গোবিন্দগঞ্জে খাদ্য গুদামে চাল নিয়ে চালবাজী «» সাদুল্ল্যাপুরে ভিজিডি কর্মসূচির নিম্নমানের১০২বস্তা চাল আটক «» গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম জেলার মা ও শিশুর পুষ্টি উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রকল্প বাস্তবায়নে অবহিতকরণ সভা «» নিয়োগ বানিজ্য ঠেকাতে জনতার সমূখ্যে গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার «» বিধবা কে ধর্ষনের চেষ্টায় মামলার আসামিকে আটকের দাবী «» গাইবান্ধায় পিপিআই কমিটির আলোচনা সভা «» রাজবাড়ীতে বাল্যবিবাহের তথ্য দিয়ে ৫ হাজার টাকা পুরষ্কার পেলেন পুলিশ অফিসার  «» নব-নির্বাচিত এম পি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজকে অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন আলহাজ্ব মোশরফ হোসেন এম পি «» কাহালু পৌরসভার ২০১৯-২০ইং অর্থ বছরের প্রায় সোয়া ১৩ কোটি টাকা বাজেট ঘোষনা

বিভাগের উন্নয়নে বিশেষ বরাদ্দের দাবিতে রংপুরে মানববন্ধন

আসন্ন বাজেটে রংপুর বিভাগের আট জেলার উন্নয়নে বিশেষ বরাদ্দ রাখাসহ ৮ দফা দাবিতে মানববন্ধন সমাবেশ কর্মসূচি পালিন করেছে একটি সংগঠন।বুধবার সকালে নগরীর কাচারী বাজারে রংপুর উন্নয়ন ফোরাম সংগঠনের উদ্যোগে এ কর্মসূচী পালন করা হয়।

সংগঠনটির সভাপতি সুলতান মাহমুদ টিটনের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, উন্নয়ন কর্মী অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম হক্কানী, সনাক রংপুর জেলা সভাপতি মোশফেকা রাজ্জাক, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. তুহিন ওয়াদুদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাহিত্যিক বক্তিত্ব আফতাব হোসেন, বিশিষ্ট রাজনীতবীদ আতাউজ্জামান বাবু, রংপুর উন্নয়ন ফোরামের সদস্য সচিব রাকিবুল হাসান রাকিব প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সারাদেশে দাদ্রিতার হার শতকরা ২৪ ভাগ হলেও রংপুরে এটি ৪৮ ভাগ। রংপুরের পুত্রবধু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, বিরোধী দলীয় নেতা, ৩ জন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, দুই জন প্রতিমন্ত্রী, হুইপ ও বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ রংপুর বিভাগেরও হলেও উন্নয়ন বৈষম্যের শিকার এ বিভাগ। রংপুরের খাদ্য শস্য গোটা দেশের চাহিদা মেটালেও বারবার অবহেলিতই থাকছে রংপুরের মানুষ। আসন্ন বাজেটে রংপুর বিভাগের উন্নয়নে বিশেষ বরাদ্দ রাখার দাবী জানান বক্তারা। সেই সাথে সকাল বিভাগে সুষম উন্নয়ন নিশ্চিত করা, রংপুরে দুটি সরকারী স্কুল প্রতিষ্ঠা, রংপুর থেকে ঢাকাগামী বিরতিহীন ও বুলেট ট্রেন চালু, বাজেটে রংপুরকে অগ্রাধিকার দিয়ে পর্যাপ্ত পরিমান বাজেট বরাদ্দ দেয়া, রংপুর নগরীর উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদী সময় উপযোগি নগর পরিকল্পনা প্রদান, বিদেশে শ্রম রপ্তানীতে বৈষম্য দুর করা এবং প্রণোদনা সাপেক্ষে রংপুরে শিল্পায়ন নিশ্চিত করার দাবীও জানানো হয়।

এরপর অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি দেয় তারা।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ