ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০শে জুন, ২০১৯ ইং, ৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :

মাসক শুধু একটি পরিবারকে না সমাজ কেউ ধ্বংস করে দেয়

শিমুল রেজা চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধিঃবর্তমান সমাজে হয়ত সততার মূল্য অনেকেই দিতে চায় না কিন্তু তারপরও এর গুরুত্ব সবাই বোঝেনা একজন মানুষ খুব সহজে অসৎ হয়ে যেতে পারেন কিন্তু সৎ হতে তাকে অনেক পরিশ্রম করতে হয় টাকা সবার জীবনেই প্রয়োজন তাই বলে এর জন্য অসৎ হলে সমাজের চোখে আজীবন মাথা নিচু করে চলতে হয়। কিন্তু কষ্ট হলেও সৎ থাকলে সমাজে মাথা উঁচু করে বসবাস করা যায়। মানব সমাজে সততার গুরুত্ব অর্থের তুলনায় অনেক বেশি উর্ধ্বে। দামুডহুদা থানার অন্তভুক্ত  র্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়িটি সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় এখানে মাদক বেশ সহজ লভ্য তাই সীমান্তবর্তী বিভিন্ন এলাকার বাড়িতে বাড়িতে গড়ে উঠেছিল মাদক ব্যাবসা এই কারনে চুয়াডাঙ্গা জেলার অন্য এলাকার তুলনায় কার্পাসডাঙ্গা ও কুড়ুলগাছি এই দুটি  ইউনিয়নে, মাদক ব্যাবসার পাশা পাশি -সহ এলাকা গুলোই মাদক সেবন কারীদের আনাগোনা অনেক বেশি এর কারনে চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন স্থান থেকে মাদক সেবীরা প্রতিদিন এখানে আসে সীমান্তপথ পেরিয়ে এসব স্থানে মাদক নিয়ে আসা হয় পরে দরদাম করে বিক্রি করা হয়।
মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয় এই গুরুপ্তপুর্ন পুলিশ ফাঁড়ির কার্পাসডাঙ্গা আই সি হিসাবে যোগদান করান এস.আই আসাদুর রহমান আসাদ, তিনি এই কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়িতে যোগদান করার পর থেকে তার সাহসীকতা, সততা আর দক্ষতার কাছে হার মানতে শুরু করেন মাদক ব্যাবসায়ীরা। তাঁর দায়িত্বরত এলাকার লোকজন বলেন, তিনি একজন সৎ ও অন্যায়ের কাছে আপোষহীন পুলিশ অফিসার। তিনি আমাদের বন্ধু তার অক্লান্ত পরিশ্রমে আজ আমাদের কার্পাসডাঙ্গা, কুড়ুলগাছি, এলাকা মাদক, চাদাঁবাজ, দখলবাজ, ইভটিজার, জঙ্গি, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী মুক্ত, করে মানুষের মনে জায়গা করে ফেলেছেন। কিছু দিন তিনি এমন কিছু করে বসলেন যে জন্য কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়ি থেকে বদলি করা হলো আই সি আসাদের বদলি খবরে এলাকার মানুষ তার জন্য হায় -হতাশ
করছেন আর আবার কেই বলেছেন আবারো শুরু হলো মাদকের ব্যাবসা ঠিক সেটাই হয়েছে। আই সি আসাদের বদলির পর থেকে
এলাকায় আবার ও শুরু হয়েছে মাদকের ব্যাবসা।
আই সি আসাদুর রহমান আসাদের বিষয়ে এলাকাবাসীদের সঙ্গে কথা বলে ও সরজমিনে ওই সব এলাকায় ঘুরে ঘুরে জানা যায় এলাকার মাদকসেবিও মাদক ব্যাবসায়ীদের কাছে আতনস্কের নাম ছিলে এস আই আসাদ। কুতুবপুর গ্রামের মন্টু মিয়া বলেন কার্পাসডাঙ্গা আই সি আসাদ বদলির থেকে এলাকায় আবারও  জুয়া খেলা শুরু হয়েছে, এবং ফুলবাড়ী গ্রামের ইয়াকুব আলী বলেন মাদক কেনা বেচা সহ এলাকায় মাদক সেবনকারীদের আনাগুনা, কুড়ুলগাছি গ্রামের রাজু সাথে কথা বললে তিনি বলেন আই সি আসাদ ছিলো এলাকায় শান্তি ছিলে, সদাবরি গ্রামের ব্যাবসায়ী শাহিন এর সাথে কথা বললে তিনি জানান কার্পাসডাঙ্গা থেকে ফিরতে রাত হয়ে গেলে ভয়ছিলো না কিন্তু এখন রাত হলে বাসাতে আসতে ভয়করে কারণ এখন যে আসাদ আর নেই কার্পাসডাঙ্গা ফাঁড়িতে তাই রাত হলে বাসাতে আসতে পারিনা, কুড়ুলগাছি মাঠ পাড়া গ্রামের সালমান বলেন আই সি আসাদের ব্যাতিক্রমী অভিযান ছিলো স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের সন্ধ্যার পর লেখা-পড়া ছেড়ে চায়ের দোকানে আড্ডা দিতে দেখলেই কঠোর হুঁশিয়ারি বা ভুমিকা নিতো, কার্পাসডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয় এর একজন এস এসসি শিক্ষার্থী বলেন আমি গর্ভকরে বলতে পারি যে আই সি আসাদের কারণে আমি ভালো রেজাল্ট  করেছি  আমি আসাদ সারের জন্য আল্লাহুর কাছে দুআ করি তিনি যেন আপনার মঙ্গোল করেন।
এবিষয়ে আই সি আসাদুর রহমান আসাদের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, মাদক কারও বন্ধু নয়, মাদকাসক্তি বর্তমান সমাজের একটি বড় সমস্যা। যারা মাদকদ্রব্য গ্রহণ করে তারা তাৎক্ষণিক মৃত্যুমুখে পতিত হয় না বটে, কিন্তু মাদক গ্রহণের কারণে তারা নানা ধরনের শারীরিক, মানসিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক সমস্যার সম্মুখীন হয়। মাদকের কারণে শুধু যে মাদকাসক্ত ব্যক্তিই ক্ষতগ্রস্ত হয় তা নয়। মাদকাসক্ত ব্যক্তির বাবা-মা, ভাই-বোন, ছেলেমেয়ে, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব সবার জীবনে প্রভাব পড়ে। সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মাদকাসক্ত ব্যক্তিরা মাদকের অর্থ জোগাড় করার জন্য চুরি, ডাকাতি, খুন রাহাজানিসহ বিভিন্ন অসামাজিক বেআইনি কাজকর্মে লিপ্ত হয় যা
বর্তমান সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগনের আশা- আকাঙ্খা অনুযায়ী এদেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। এস আই আসাদ আর ও বলেন মাদক শুধু একটি পরিবারকে না সমাজ কেউ ধ্বংস দেয়, তাই মাদক সেবনকারী, ব্যাবসায়ী উৎপাদক ও সরবরাহ কারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। পুলশী সেবা এলাকার প্রতিটি মানুষের কাছে পৌছে দিতে বাদ্ধ
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ