ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০শে জুন, ২০১৯ ইং, ৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :

মুজিবনগরের শিক্ষিকা ধর্ষন মামলায় প্রধান শিক্ষকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

মেহেদী হাসান মিলন, সোহাগ মন্ডল : কুষ্টিয়ায় খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী এক শিক্ষিকাকে ধর্ষনের দায়ে একই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১ লক্ষ টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছে আদালত।
> মঙ্গলবার সকালে কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মুন্সী মোঃ মশিয়ার রহমানএই রায় ঘোষনা করেন।
> অভিযুক্ত শিক্ষক শরিফুল ইসলাম মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর উপজেলার ভবরপাড়া গ্রামের মৃত রহমান মোল্লার ছেলে।
> সে মুজিবনগর আম্রকানন নিম্মমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং ধর্ষনের শিকার ঐ শিক্ষিকা একই বিদ্যালয়ে খন্ডকালীন শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
> আদালত সূত্রে জানা যায়, ধর্ষনের শিকার ঐ শিক্ষিকা ২০১৬ সালের ১৩ মে মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় অংশ নিতে অভিযুক্ত শিক্ষক শরিফুল ইসলামের সাথে কুষ্টিয়া আসেন। কুষ্টিয়া শহরের বড়বাজার এলাকায় আল আমিন আবাসিক হোটেলে মামা-ভাগিনা পরিচয়ে আলাদা আলাদা কক্ষ ভাড়া নেন। ঐদিন ভোরবেলা শরিফুল ইসলাম ঐ শিক্ষিকাকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। এসময় বিষয়টি কাউকে না জানাতে হত্যার হুমকীও দেওয়া হয় ঐ শিক্ষিকাকে। ঐ শিক্ষিকা গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়লে একটি ইজিবাইক ভাড়া করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠালেও অভিযুক্ত শিক্ষক কৌশলে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় ভুক্তভোগি শিক্ষিকা বাদী হয়ে প্রধানশিক্ষক শরিফুল ইসলামকে একমাত্র আসামী করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ২০১৬ সালের ১ অক্টোবর আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। দীর্ঘ শুনানিন্তে আদালত আজ এই রায় ঘোষনা করেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ