ঢাকা মঙ্গলবার, ২৩শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» লামা উপজেলাধীন ফাইতং ইউনিয়নের  ইটভাটা মালিকদের অবৈধ পাহাড়  কাটা  «» চমেক হাসপাতালের আগুন এখন নিয়ন্ত্রনেঃ ক্ষয়ক্ষতি লক্ষাধিক টাকা «» পলাশবাড়ীতে অজ্ঞান পার্টির ৪ সদস্য গ্রেফতার,সিএনজি ও মোবাইল উদ্ধার «» গাইবান্ধা থেকে বন্যার পানি কমছে না «» পলাশবাড়ীর হাট-বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমুল্য বৃদ্ধি «» ডোমারে বর্যার কবিতা পাঠ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» চট্টগ্রামের পতেঙ্গা লালদিয়া চরের উচ্ছেদকৃত মানুষের আহাজারীতে কাঁপছে আকাশ-বাতাস «» চট্টগ্রামের অক্সিজেনে চসিক’র অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান «» র‌্যাব-৮ মাদারীপুর এর অভিযানে ১২ হাজার পাঁচশত পিস ইয়াবা উদ্ধার এবং ট্রাকসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক  «» চিরিরবন্দরে স্ত্রীকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যার অভিযোগ ঘাতক স্বামী আটক

মেহেরপুরে রমজান মাসকে সামনে রেখে শসা চাষ করে  ভবান হচ্ছে চাষী

 

মেহের আমজাদ,মেহেরপুর : মেহেরপুরে এবার রমজান মাসকে সামনে রেখে শসা চাষ করে লাভবান হচ্ছে এলাকার চাষীরা। রমজান মাসে শসার ব্যপক চাহিদা থাকায় প্রতিবছরই এই সময় শসার চাষ করে আসছে চাষীরা। এবার আবহাওয়া ভাল থাকায় শসার ফলনের পাশাপাশি বাজারে দামও ভালো পাচ্ছে চাষী।
মেহেরপুর জেলার রঘুনাথপুর,পিরোজপুর, কাঁঠালপোতা, সোনাপুর, কাজীপুর, ধানখোলা, বারাদী অঞ্চলের বিস্তৃর্ণ জমিতে শসার চাষ হয়েছে। জমি থেকে প্রতি কেজি শসা এবার ১২-১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছে চাষীরা। ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচ করে এক বিঘা শসায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা লাভের আশা চাষীদের। ঈদকে সামনে রেখে শসায় দাম ভাল পেয়ে খুব খুশি চাষীরা। চলতি মৌসুমে জেলায় ১ হাজার ২’শ হেক্টর জমিতে শসার আবাদ হয়েছে বলে জানা গেছে কৃষি বিভাগ সূত্রে। শসার চাহিদা থাকায় চাষীদের পাশাপাশি ব্যবসায়ীরাও মেহেরপুরের শসা কিনে দেশের বিভিন্ন বাজারে বিক্রি করে লাভবান হচ্ছে।
মেহেরপুর কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড. মোঃ আক্তারুজ্জামান জানান, নিরাপদ সবজি উৎপাদনে কৃষকদের সার, কীটনাশক প্রয়োগে পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ। কৃষক ও ব্যবসায়ীরা যাতে ক্ষতিকারক কেমিক্যাল মিশাতে না পারে তার জন্য সব সময় মাঠ পর্যায়ে মনিটরিং করা হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ