ঢাকা শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» নওগাঁর মান্দায় বানভাসী মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ «» এবার ঝিনাইদহের শৈলকুপা  ছাত্রীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা «» হরিণাকুন্ডুর কাপাশাহাটিয়া ইউনিয়নে উপ-নির্বাচনে নৌকা মার্কার পক্ষে পথসভা «» খুলনার সাফল্যে গাঁথা নারী ইউএনও চিরিরবন্দরের কন্যা শাহনাজ বেগম «» রূপসায় সেনের বাজার স্ট্যান্ডে দু’গ্রæপের সংঘর্ষে আহত ৭ «» দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী সফরসঙ্গী আবু জাফর রাজু ড়া «» লাইনচ্যুত হয়ে প্রায় ৫০০ মিটার হেছড়ে স্টেশন প্লাটফর্মে গিয়ে পৌছায় «» নেত্রকোনায় প্রকাশ্য দিবালোকে শিশুর গলা কাটা মস্তক নিয়ে ঘুরে বেড়ানো ঘটনায় শিশু হন্তারক গণপিটুনিতে নিহত «» বীরগঞ্জে ১৩জন অস্বচ্ছল, প্রতিবন্ধী ও বয়স্কদের মাঝে ভাতা’র বই বিতরণ «» চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকে কুপিয়ে জখম

মেহেরপুরে লিচুর বাম্পার ফলন তবে বাজার দরে হতাশ চাষী

মেহের আমজাদ,মেহেরপুর : চলতি বছরে মেহেরপুরে লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে ফলন ভাল হলেও বর্তমান বাজার দরে চাষীরা হতাশ। গত বছরের তুলনায় এবার কাউন প্রতি ৪০০-৫০০ টাকা কম দামে লিচু বিক্রি করতে হচ্ছে বলে জানালেন চাষীরা। এর ফলে লাভবান হতে পারছেননা চাষীরা ।
চলতি মৌসুমে মেহেরপুর জেলায় আমের ফলন বিপর্যয় হলেও লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে। বাগানগুলো থরে থরে ঝুলছে আটি, বোম্বায়, মোজাফ্ফরি, বেদানা ও চাইনা-৩ জাতের লিচু। চলতি বছরে লিচুর মুকুল আসার পর থেকে পর্যাপ্ত বৃষ্টি হওয়ায় লিচুর আকার ও রং বেশ ভাল হয়েছে। এবার লিচু কালার করতে কোন প্রকার ফরমালিন বা কেমিক্যাল ব্যবহার করছেন না বলে জানান বাগান মালিকরা। কৃষি বিভাগের হিসেবে মেহেরপুর জেলায় লিচুর বাগান আছে ৬০০ হেক্টর জমিতে।
চাষীরা জানান, গতবারের তুলনায় এবার লিচুর দাম অনেক কম। বর্তমানে বাজারে এক কাউন লিচু বিক্রি হচ্ছে ১১শ-১৪শ টাকা, যা হওয়ার কথা ছিল ২ হাজার টাকার উপরে।
ব্যবসায়ীরা বলছেন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে একই সাথে লিচু বাজারজাত হওয়ায় চাহিদার তুলনায় আমদানী বেশি হয়ে যাচ্ছে ফলে লিচুর দাম কম।
সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মোশাররফ হোসেন জানান, এবার লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে তাই বাজার দর যাই থাক চাষীরা লাভবান হবে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ