ঢাকা বুধবার, ২২শে মে, ২০১৯ ইং, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
ADD
শিরোনাম :

সাংবাদিক আজাদের ওপর সন্ত্রাসি হামলা: বিএমএসএফ’র প্রতিবাদ

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও অনলাইন সম্পাদক পরিষদের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদের ওপর সন্ত্রাসি হামলার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর উত্তর বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয় সাংবাদিকরা তাকে উদ্বার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনায় বিকেলে বাড্ডা থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতির কথা জানানো হয়েছে। এদিকে বিকেলে বিএমএসএফ’র পক্ষ থেকে পাঠানো বিবৃতিতে সাংবাদিক নেতার ওপর অতর্কিত হামলায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর বলেছেন, সাংবাদিকেরা আজ আর কোথাও নিরাপদ নয়। নিজের স্বার্থে যে কেউ সাংবাদিকের গায়ে হাত তুলতে দ্বিধাবোধ করছেন না। সাংবাদিকেরা যেন ফুটবল। যেমন খুশি খেলতে পারছেন! এই অবস্থা থেকে সাংবাদিকদের বেরিয়ে আসতে হবে। সাংবাদিক সমাজকে মুক্তি দিতে হবে। সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন করতে হবে। সন্ত্রাসী অনিক ও তার সহযোগিদের গ্রেফতার করা না হলে সংগঠনের পক্ষ থেকে কঠোর কর্মসূচী গ্রহনেরও হুশিয়ারী দেয়া হয়।

আহত সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ দুপুর ৩টায় ঢাকা মেডিকেলে সাংবাদিকদের কাছে জানিয়েছেন, তার বাসার গ্যারেজে বহিরাগত গাড়ি রাখাকে কেন্দ্র করে হামলা চালিয়ে সিসি ক্যামেরা ভাংচুর করে শারিরীক লাঞ্ছিত করে। হত্যা, মাদকসহ বিভিন্ন মামলার আসামি সন্ত্রাসি অনিক ও তার সহযোগি জুয়েল ও মাহবুব এ হামলা চালায়। এতে আজাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফুলা জখম হয়েছে।
আজাদ এ সময় নিজেকে একজন সাংবাদিক পরিচয় দিলেও সন্ত্রাসি অনিক গোটা সাংবাদিক জাতিকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে। এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে আজাদের বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির হুমকি দেয়। সংগঠনের পক্ষ থেকে অবিলম্বে সন্ত্রাসি অনিক ও তার সহযোগিদের গ্রেফতারের দাবি করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ