ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০শে জুন, ২০১৯ ইং, ৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :

সিনেমা করার কারণে মারও খেতে হয়েছে: ববি

প্রায় এক দশক ধরে চলচ্চিত্রের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত রেখেছেন ববি। তবে তিনি জানালেন, এত লম্বা সময় হাঁটার রাস্তাটা একেবারে মসৃণ ছিলো না।

শুরু থেকেই পরিবার থেকে তার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে আপত্তি ছিলো। এমনকি এখনও কোনও ধরনের অনুকূল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি।ববি বলেন, ‘সিনেমা করার কারণে মার-ও খেতে হয়েছে আমাকে।’তবে বরাবরই কাজের প্রতি আন্তরিক ববি শুরু থেকেই চেয়েছেন কম কিন্তু ভালো কিছু চলচ্চিত্রে কাজ করতে।গত মাসে ববি তার জীবনের সবচাইতে প্রিয় মানুষ, বাবাকে হারিয়েছেন। ভারত থেকে বাবার মৃত্যুর খবর পেয়ে ছুটে এসেছিলেন ঢাকায়। অথচ এর কিছুদিন পরই ‘নোলক’ চলচ্চিত্রের একটি বিশেষ গানের শুটিংয়ে অংশ নিতে ভারত যেতে হয় তাকে। নিজের জীবনের এমন অনেক অজানা কথা ববি জানিয়েছেন । সাকিব সনেটের পরিচালনা ও প্রযোজনায় ববির ছবি ‘নোলক’ মুক্তি পাচ্ছে আসছে ঈদে। তিনি জানান, শুধু ‘নোলক’ কিংবা এ ছবির শিল্পীদেরই নয়, তার অভিনন্দন ও দোয়া থাকবে অন্য দুই ছবির পরিচালক মালেক আফসারী, অনন্য মামুন, নায়িকা বুবলী, স্পর্শিয়াসহ সবার জন্য।
নিজের বিয়েতে নোলক পরতে চান ববি। সেই সাথে জানান, ‘নোলক’ চলচ্চিত্রের শুটিং করতে গিয়ে ভারতের রেকর্ড সৃষ্টিকারী ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র ‘বাহুবলী’র ঘোড়া চালাতে হয়েছে তাকে। হায়দরাবাদে শুটিংয়ের সময় ঘোড়ার গাড়ির সঙ্গে একজন প্রশিক্ষকও ছিলেন। ববি বলেন, ‘একটু পরপর বিশ্রাম নিতে হয় ঘোড়াকে। তার মেজাজ-মর্জি বুঝে বিস্কুট খেতে দিতে হয়। সেই ঘোড়া একটা সময় ববিকে নিয়ে ঢুকে পড়েছিল জঙ্গলে! ক্যামেরাম্যানসহ সবাই আমার থেকে বেশ দূরে ছিলেন। আমি মাথা নিচু করে না রাখলে জঙ্গলে আটকে সেখানেই আমার শেষ দিন হতে পারতো। ববি তার গল্পের মাঝেই একটি গোপন তথ্য জানান, অভিনয়ের পাশাপাশি ফ্যাশন ডিজাইনিং ও হেয়ারস্টাইল করা তার নেশা। যে কেউ তার কাছে এসে চুল কাটতে চাইলে ববি অবশ্যই তার হেয়ার স্টাইল নিয়ে ভাববেন। চিত্রনায়ক আলমগীরের ‘ক্রাশ’ ববি ‘রাঙা সকাল’-এ বিস্তারিত জানান, সমাজের প্রতি তার দায়বদ্ধতার কথা। শিল্পী হবার আগে এবং পরে ববির সামাজিক আন্দোলনের বিস্তারিত সব তথ্য জানা যাবে ‘রাঙা সকাল’-এ। রুম্মান রশীদ খান ও সাকী’র উপস্থাপনায় ‘রাঙা সকাল’-এর এই বিশেষ পর্বটি প্রচার হবে আসছে ঈদের ৩য় দিন সকাল ৭টায় মাছরাঙা টেলিভিশনে। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেছেন রকিবুল আলম ও জোবায়ের ইকবাল।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ