ঢাকা রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» রাজশাহীতে আমন রোপণ ব্যাহত,কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টির দেখা নেই «» রাজশাহীতে ছেলেধরা গুজবে মাইকিংয়ের নির্দেশনা,নারীসহ দুই যুবককে গণপিটুনি «» চুয়াডাঙ্গা পরিদর্শনে পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি হাবিবুর রহমান  «» গ্রামের মানুষের জন্যে নিজ টাকায় রাস্তা সংস্কার করলের যুবলীগ নেতা মিজান «» কোম্পানীগঞ্জে জেল থেকে বের হওয়ার ১৫ দিনের মাথায় প্রতিপক্ষের পিটুনিতে যুবক নিহত «» ফরিদপুরে জাল টাকাসহ আটক-২ «» দিনাজপুরে নবরূপী’র মাসিক সাহিত্য বাসরে কবি সাহিত্যিকদের মিলন মেলা «» দিনাজপুর দোকান কর্মচারী ইউনিয়নের বিশেষ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত «» দিনাজপুরে শীঘ্রই পাইপ লাইনে গ্যাস আসছে «» দিনাজপুর শহরের প্রান কেন্দ্রে ৪০ কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি দখল

সেনবাগে সাবেক ছাত্রলীগ সেক্রেটারী সহ ৩জন কে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

নোয়াখালী প্রতিনিধি,
নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারী ও বিশিষ্ঠ্য ব্যবসায়ী শহিদ উল্লা চৌধুরী (৫৩) ও তার ও অপর দুই ভাইকে উজ্বল (৩০) এবং সুমন (৩৮)কে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার চেষ্ঠা চালিয়েছে একই এলাকার আবদুর রবের ৩ ছেলে ছারওয়ার আলম , ফখরুল ও বাপ্পী।
ওই ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকেলে সেনবাগ উপজেলার ৪নং কাদরা ইউপির মগুয়া বাজারে। পরে স্থানীয়রা তাদেলকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার সেনবাগ সরকারি হাসপাতালে ভতি করা হয়েছে।
হাসপাতালে চিকিৎসার্ধীর শহিদ উল্লা চৌধুরী জানান, শুক্রবার সকালে তিনি স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে তার নির্মাানার্ধীন মগুয়া বাজার সন্নিকটে নতুন বাড়ীর দেখতে যান। এসময় ভবনের ওপর পড়ে থাকা একটি বাঁশের কঞ্জি (চিবা) কেটে দিলে একই বাড়ীর আবদুর রবের ছেলে ফখরুল ও বাপ্পীন সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় তারা শহিদকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। পরে বিকেলে শীহদ বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে মগুয়া বাজারে স্থানীয় কাদরা ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান পলাশ ও ঘটনাকারীর ভাই ছারোয়ার,একই বাড়ীর মফিজ,মিলনকে ঘটনাটি অবহিত করছিলেন।
এসময় শহিদের ভাই উজ্জল নামাজের ওজু করে স্কুল গেইটের সামনে আসা মাত্র পূর্বে থেকে অবস্থান করা ছারওয়ারের নেৃতৃত্বে ফখরুল ও বাপ্পী উজ্জলকে বেধম মারধর শুরু করে। এসময় খবর পেয়ে শহিদ ও সুমন উজ্জলকে উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে তারা সুমনকে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে ও শহিদকে রড এবং পাইপ পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত এঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।
আহতদের দেখতে হাসপাতালে যান,সেনবাগ উপজেলার পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কবির, স্থানীয় সংসদের প্রতিনিধি কামাল উদ্দিন চৌধুরী, মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ উল্যাহ বিএসসি, সেনবাগ উপজেলার যুবলীগের আহবায়ক আ.স.ম. জাকারিয়া আলম মামুন , সেনবাগ পৌর যুবলীগ আহবায়ক জাহিদুল হক রিপন প্রমুখ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ