ঢাকা বুধবার, ২৬শে জুন, ২০১৯ ইং, ১২ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» গাইবান্ধায় অনুর্দ্ধ-১২ ক্রিকেট কার্ণিভাল অনুষ্ঠিত «» গোবিন্দগঞ্জে খাদ্য গুদামে চাল নিয়ে চালবাজী «» সাদুল্ল্যাপুরে ভিজিডি কর্মসূচির নিম্নমানের১০২বস্তা চাল আটক «» গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম জেলার মা ও শিশুর পুষ্টি উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রকল্প বাস্তবায়নে অবহিতকরণ সভা «» নিয়োগ বানিজ্য ঠেকাতে জনতার সমূখ্যে গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার «» বিধবা কে ধর্ষনের চেষ্টায় মামলার আসামিকে আটকের দাবী «» গাইবান্ধায় পিপিআই কমিটির আলোচনা সভা «» রাজবাড়ীতে বাল্যবিবাহের তথ্য দিয়ে ৫ হাজার টাকা পুরষ্কার পেলেন পুলিশ অফিসার  «» নব-নির্বাচিত এম পি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজকে অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন আলহাজ্ব মোশরফ হোসেন এম পি «» কাহালু পৌরসভার ২০১৯-২০ইং অর্থ বছরের প্রায় সোয়া ১৩ কোটি টাকা বাজেট ঘোষনা

এই রমযানে যাকাত প্রদান করুন : (মাগফিরাতের  ষষ্ঠ দিন)

মাওলানা : মো : রায়হানূর রহমান

ইসলামের পঞ্চ স্তম্ভের অন্যতম যাকাত । পবিত্র কুরআনে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আর তোমরা সালাত কায়েম কর এবং যাকাত প্রদান কর।’ (সূরা মুয্যামমিল: ২০)। ইবরাহীম (আঃ) ও তার বংশধরদের আলোচনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন : ‘আমি তাদেরকে ভাল কাজ করার, নামায কায়েম করার এবং যাকাত আদায় করার নির্র্র্দেশ দিয়েছি।’ (সূরা আম্বিয়া :  ৭৩) । আমি বনী ইসরাইলের কাছে ওয়াদা নিয়েছিলাম যে, তোমরা আল্লাহ ছাড়া করো ইবাদাত করবে না .. .এবং রীতিমত সালাত কায়েম করবে এবং যাকাত আদায় করবে । (সূরা বাকারাহ :  ৮৩) । হাদিসে এসেছে, জারীর ইবনে আব্দুল্লাহ (রাঃ) বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ (সা) এর কাছে নামায কায়েম করা, যাকাত প্রদান করা এবং প্রত্যেক মুসলমানের জন্য কল্যাণ কামনার ব্যাপারে বাইআত গ্রহণ করেছি । (বুখারি :  ১৩৮৪) ।

আবু হুরায়রা (রাঃ)  সূত্রে । রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেন : কোন স্বর্ণ ও রৌপ্যের মালিক যদি এগুলোর হক(যাকাত) আদায় না করে তবে কিয়ামতের দিন তার জন্য আগুনের পাত তৈরি করা হবে । তারপর জাহান্নামের আগুনে উত্তপ্ত করে তা দিয়ে তার পার্শ্বে, ললাটে ও পৃষ্ঠদেশে দাগ দেয়া হবে । যখন উত্তপ্ততা কমে যাবে তখন পুনরায় তা উত্তপ্ত করা হবে । এভাবে দিনভর চলতে থাকবে যার পরিমাণ হবে পঞ্চাশ হাজার বছর, যে পর্যন্ত না বান্দাদের মধ্যে ফয়সালা হবে । অতঃপর দেখানো হবে তার পথ জান্নাত অথবা জাহান্নামের দিকে । উটের মালিক যদি তার হক আদায় না করে তবে কিয়ামতের দিন তাকে এক প্রশস্ত ময়দানে অধঃমুখী করে শোয়ানো হবে ।

তারপর ঐ উট আগের চেয়ে মোটা তাজা হয়ে মালিকের কাছে উপস্থিত হবে । এমনকি একটি বাচ্চাও বাদ পরবে না । সেগুলো স্বীয় ক্ষুর দ্বারা মালিককে পায়ে মাড়াতে থাকবে এবং মুখে কামড়াতে থাকবে । মালিককে দলিত করে একটি উট চলে গেলে আরেকটি উট চলে আসবে । এভাবে দিনভর চলতে থাকবে যার পরিমাণ হবে পঞ্চাশ হাজার বছর, যে পর্যন্ত না বান্দাদের মধ্যে ফয়সালা হবে । অতঃ পর দেখানো হবে তার পথ জান্নাত অথবা জাহান্নামের দিকে । একইভাবে গরু-ছাগলের মালিক যদি তার হক আদায় না করে তবে কিয়ামতের দিন তাকে এক প্রশস্ত ময়দানে অধঃমুখী করে শোয়ানো হবে । তারপর ঐ গরু-ছাগল আগের চেয়ে মোটা তাজা হয়ে মালিকের কাছে উপস্থিত হবে । এমনকি একটি বাচ্চাও বাদ পরবে না । সেগুলো স্বীয় ক্ষুর দ্বারা মালিককে পায়ে মাড়াতে থাকবে এবং শিং দ্বারা আঘাত করতে থাকবে । মালিককে দলিত করে একটি দল চলে গেলে আরেকটি দল চলে আসবে ।

এভাবে দিনভর চলতে থাকবে যার পরিমাণ হবে পঞ্চাশ হাজার বছর, যে পর্যন্ত না বান্দাদের মধ্যে ফয়সালা হবে । অতঃ পর দেখানো হবে তার পথ জান্নাত অথবা জাহান্নামের দিকে । (বুখারি :  ১৩৮৫,১৪৩৯,মুসলিম :  ২১৬২, আবু দাউদ :  ১৬৫৮) । জাবির ইবনে আব্দুল্লাহ (রাঃ)  সূত্রে । রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেন : কোন সম্পদশালী যদি তার মালের হক (যাকাত) আদায় না করে তবে কিয়ামতের দিন তার এ সঞ্চয় টেকো মাথার বিষধর সাপরূপে মালিকের কাছে উপস্থিত হবে এবং মুখ হা করে তাকে ধাওয়া করবে । আর তাকে বলা হবে এই তোমার সঞ্চিত সম্পদ যার ব্যাপারে তুমি কার্পণ্য করতে ।  অবশেষে সাপটি তার হাত কামড়ে ধরবে এবং ষাড়ের চিবানোর ন্যায় চিবাতে থাকবে । (মুসলিম :  ২১৬৯,) ।

বুখারিতে আরো আছে : কিয়ামতের দিন তা তার গলায় বেড়িরূপে পরানো হবে ।(বুখারি :  ১৩৮৬) । আহনাফ ইবনে কায়স (রাঃ)  বলেন: একবার আবু যার (রাঃ)   জনসম্মুখে এসে বললেন : সম্পদ জমাকারীদের সুসংবাদ দাও । গরম লোহা দ্বারা তাদের পৃষ্ঠদেশে দাগ দেয়ার, যা তাদের পার্শ্বদেশ দিয়ে বের হবে এবং তাদের ঘাড়ের দিকে গরম লোহা দ্বারা এমনভাবে দাগ দেয়ার যা তাদের ললাটের দিক দিয়ে বের হবে । তিনি বলেন আমি এটা নাবী (সা) এর কাছে শুনেছি । (মুসলিম :  ২১৭৯) । তাই আজই আপনার সম্পদ হিসেব করে যাকাত প্রদান করুন।

………………………………………………………………………………………………………………………..

মাওলানা : মো : রায়হানূর রহমান

সহকারী শিক্ষক : এ.পি.বিএন. পাবলিক স্কুল ও কলেজ , বগুড়া সদর, বগুড়া।

খতীব : কর্ণপুর (উত্তরপাড়া) বায়তুন নূূর জামে মসজিদ, বগুড়া সদর, বগুড়া ।

খতীব : সরাতলী, ঈশ্বরপুর ও ঠাকুরপাড়া ঈদগাহ, গাবতলী, বগুড়া ।

মোবা : ০১৭৩৯-৮৫০৬৫৬,   gmail : rrahman.rr75@gmail.com

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ