ঢাকা শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
basic-bank
শিরোনাম :
«» জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে গোপালগঞ্জে মাছের পোনা অবমুক্তি, বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» মেহেরপুরে নান আয়োজনের মধ্য দিয়ে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন «» খুলনা বিভাগীয় সমাবেশ সফল করতে মেহেরপুরে বিএনপি’র গণমিছিল «» জাতীয় মৎস্য সপ্তাহর উদ্বোধন মধুখালীতে «» মধুখালী উপজেলা পর্যায়ে ফাইনাল খেলার «» আধুনিক মানসম্মত এক্স-রে মেশিন টি আর ৫০০ এমএম এক্স-রে মেশিন চিকিৎসা সেবায় অবদান রাখবে প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু «» ভাঙ্গুড়ায় ছেলে ধরা আটক -২ «» বয়স্ক ভাতার টাকা তুলতে গিয়ে নারী আহত «» ডাকাত দলের দু’ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ «» সান্তাহারে কলেজ ছাত্রীকে উক্তত্য করার প্রতিবাদে মারপিট আহত-৩,আটক-১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তব রূপ লাভ করেছে : মোস্তাফা জব্বার

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের অনুপ্রেরণা ও দিকনির্দেশনায় ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তব রূপ লাভ করেছে।
তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পুরষ্কার হিসেবে একের পর এক আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়ায় দেশ বিরল সম্মান অর্জন করেছে।মোস্তফা জব্বার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় জাতিসংঘের ওর্য়াল্ড সামিট অন দ্য ইনফরমেশন সোসাইটি (ডব্লিউএসআইএস), ২০১৯ সালের ফলোআপ ফোরামের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে আজ দেশে ফিরে হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা বলেন।
আইটিইউ, ইউনেস্কো, ইউএনডিপি এবং ইউএনসিটিএডি’র যৌথ উদ্যোগে জাতিসংঘের টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিখাতের এমন বড় কোনো সামিটে বাংলাদেশের কারো চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করা এবারেই প্রথম।
‘টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্য অর্জনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি‘ প্রতিপাদ্য নিয়ে জেনেভায় ৮ থেকে ১২ এপ্রিল এই ফোরাম অনুষ্ঠিত হয়।
৫ দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের মন্ত্রী পর্যায়ের প্রতিনিধিসহ সরকারি-বেসরকারি ও আন্তর্জাতিক সংস্থার ৩ হাজারেরও বেশি প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন।
মোস্তফা জব্বার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ৯ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলেরও নেতৃত্ব দেন।
ডব্লিউআইএসের এবারের সম্মেলন বাংলাদেশের জন্য গৌরবের এবং অর্জনের বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্ববাসীর কাছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন নেতৃত্বে সমৃদ্ধির বাংলাদেশকে তুলে ধরার মাধ্যমে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।
তিনি বলেন, এই ফোরামের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রতি বিশ্ব সম্প্রদায়ের মনোযোগ আরো বৃদ্ধি পেয়েছে।
বিশ্বে বৈষম্যহীনভাবে প্রযুক্তি রূপান্তরের জন্য ডব্লিউএসআইএস একটি গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম বলে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বৈষম্যহীন প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্ব গড়তে শিল্পোন্নত এবং ধনী দেশগুলোই নয়, অনুন্নত আর উন্নত দেশ সবাইকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার জন্য ডব্লিউএসআইএসকে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের প্রয়োজনীয়তার ওপর আমরা গুরুত্বারোপ করেছি।
তিনি ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। সম্মেলনের বিভিন্ন ইভেন্টে মন্ত্রীর উপস্থাপনায় প্রথম তিনটি শিল্পবিপ্লব মিস করেও গত দশবছরে কৃষিভিত্তিক অর্থনীতির দেশ থেকে ডিজিটাল শিল্পবিপ্লব বা চতুর্থ শিল্পবিপ্লবে বাংলাদেশ বৈশ্বিক নেতৃত্বের জায়গায় পৌঁছানোর সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন নেতৃত্বে গৃহীত কর্মসূচিসমূহের চিত্র উঠে আসে।
তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক প্রমুখ সম্মেলনে অংশ নেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।
ঘোষনাঃ